বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন

ডাকসু নির্বাচনে জনপ্রিয় মুখ ছাত্রনেতা সাদ বিন কাদের

ডাকসু নির্বাচনে জনপ্রিয় মুখ ছাত্রনেতা সাদ বিন কাদের

 

মোহাম্মদ মাকসুদুল হাসান ভূঁইয়া রাহুলঃ
কড়া নাড়ছে ডাকসু নির্বাচন। আসছে ১১ মার্চ দীর্ঘ ২৯ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দেশের ‘মিনি পার্লামেন্ট’ খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন। একই দিনে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘হল সংসদ’ নির্বাচন।

ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বইছে উৎসবের জোয়ার। বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকে শুরু করে ডিপার্টমেন্ট, অনুষদ, একাডেমিক ভবন, রেজিস্ট্রার বিল্ডিংসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সর্বত্র চলছে নির্বাচনী আমেজ। প্রচারণায় ব্যস্ত ‘ডাকসু’ ও ‘হল সংসদ’ নির্বাচনে অংশ্রগ্রহণকারী প্রার্থীরা। চমৎকার ও দূরদর্শী নানান পরিকল্পনা নির্বাচনী ইশতেহারে রেখে চলছে প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণা।

ডাকসু’ নির্বাচনে ঘোষিত হয়েছে বেশ কয়েকটি প্যানেল। এক ঝাঁক তরুণ, মেধাবী ও বিচক্ষণ শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ‘সম্মিলিত শিক্ষার্থী সংসদ’ প্যানেল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

‘সম্মিলিত ছাত্র সংসদ’ এর ব্যানারে ‘ডাকসু’ নির্বাচনে ‘স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক’ পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন ক্যাম্পাসের জনপ্রিয় মুখ সাদ বিন কাদের চৌধুরী৷ তাঁর নির্বাচনী ব্যালট নাম্বার ১১।

সাদ বিন কাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনপ্রিয় ছাত্রনেতা। সদা হাস্যোজ্জ্বল সুদর্শন এই ছাত্রনেতা পড়াশোনা ও রাজনীতির পাশাপাশি জড়িত আছেন বিভিন্ন মানবিক কর্মকান্ডে। বন্যা পীড়িত অসহায় মানুষ, অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থী ও অভাবী মানুষদের পাশে সদা সর্বদা সাহায্যের হাত নিয়ে দাঁড়ান মানবিক এই ছাত্রনেতা। তাঁর এই মানবিক গুণের কারণে তিনি সব মহলে সমাদৃত।

তাঁর মানবিক গুণাবলী, স্পষ্টবাদীতা ও সততার কারণে আসন্ন ডাকসু নির্বাচনে ‘স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক’ পদে সাদ বিন কাদের বিপুল ভোটে জয়ী হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

‘কোনো ইশতেহার নয়, নয় কোনো শব্দের ফুলঝুরি, আপনার স্বপ্ন সাজবে আপনার সুচিন্তিত মতামতে’- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে চলছে সাদ বিন কাদের চৌধুরীর নির্বাচনী প্রচারণা।

সাদ বিন কাদের বলেন, শিক্ষার্থীরা হলো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীরা আবাসন সংকট, লাইব্রেরি-রিডিং রুম সংকট, উন্নতমানের খাবার সংকট, পরিবহন সংকট, রেজিস্টার বিল্ডিংয়ের আমলাতান্ত্রিক জটিলতাসহ নানাবিধ সমস্যায় পড়েন। শিক্ষার্থীদের সামগ্রিক সমস্যার সমাধানে কাজ করে যাবো।

মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়ে তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গর্বের ইতিহাস। মুক্তিযোদ্ধারা সেই ইতিহাসের মহানায়ক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র, লাইব্রেরি ও জাদুঘর প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করবো। এছাড়া আর্থিকভাবে অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করেন সাদ বিন কাদের।

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট ধারণ করে যারা সরকার প্রদত্ত রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন তাদের সার্টিফিকেট বাতিলের সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাবেন বলে জানান তিনি। প্রয়োজনে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের সার্টিফিকেট বাতিল করার জন্য সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিয়ে আন্দোলনে নামার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন জননন্দিত এই ছাত্রনেতা।

ডাকসু নির্বাচনে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সাদ বিন কাদের চৌধুরী।

উল্লেখ্য, আগামী সোমবার (১১ মার্চ, ২০১৯) দীর্ঘ ২৯ বছরের পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন৷ সর্বশেষ ১৯৯০ সালের ৬ জুলাই ‘ডাকসু’ ও ‘হল সংসদ’ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com