শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গাদের জন্য প্রস্তুত ভাসানচর, প্রকল্পের ৮০ ভাগ কাজ শেষ

রোহিঙ্গাদের জন্য প্রস্তুত ভাসানচর, প্রকল্পের ৮০ ভাগ কাজ শেষ

নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার মেঘনা নদীর বুকে জেগে উঠা ভাষান চরে নির্মিত রোহিঙ্গা পূনর্বাসন কেন্দ্র প্রায় প্রস্তুত রোহিঙ্গাদের গ্রহণের জন্য। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করার কথা রয়েছে এ রোহিঙ্গা পূনর্বাসন কেন্দ্রটি। ইতোমধ্যে রোহিঙ্গা পূনর্বাসন কেন্দ্রর বেড়িবাঁধ, বাসস্থান ,সাইক্লোন শেল্টার, আভ্যন্তরীন সড়ক, লাইট হাউজসহ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে ৮০ ভাগ।

ভাসানচর এর দৈর্ঘ্য ১২ কিলোমিটার এবং প্রস্থ্য ১৪ কিলোমিটার। এখানে গত ৯ মাসের বেশি সময় ধরে প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজার শ্রমিক কাজ করছে। এখানে প্রাথমিকভাবে ১ লক্ষ রোহিঙ্গাকে পুনর্বাসন করা হবে বলে জানা যায়। বসবাসের উপযোগী করে গড়ে তোলা হচ্ছে বিশাল এ চরকে। এখানে নির্মাণ করা হচ্ছে থাকার ঘর, খেলার মাঠ, পুকুর, মসজিদ, হাসপাতাল, সড়ক, লাইট হাউজ, গার্ডেন, সাইক্লোন শেল্টার, সোলার সিস্টেম।

তৈরি হচ্ছে ১৪৪০ টি টিনশেড পাকাঘর। প্রতিটি শেডে রয়েছে ১৮টি রুম। শেডের দুই পাশে আছে বাথরুম আর কিচেন। প্রতি ৪ সদস্য বিশিষ্ট পরিবারকে দেয়া হবে ১ টি রুম। প্রতি রুমে থাকছে দোতলা বিশিষ্ট ২ টি বেড।

মেঘনা নদীর বুকে জেগে উঠা এ চরকে জড়-জলোচ্ছ্বাস থেকে নিরাপদ করার জন্য নির্মাণ করা হয়েছে ১৪ কিলোমিটার বেঁড়ি বাঁধ। ৪ তলা বিশিষ্ট ১২০ টি সাইক্লোন শেল্টার। মাটি থেকে ৪ ফিট উঁচুতে হচ্ছে বাসস্থান।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com