শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন

তিন স্ত্রী নিয়ে সুখের সংসার, বিছানা বিচ্ছেদের ফর্মুলাতেই বাজিমাত যুবকের

তিন স্ত্রী নিয়ে সুখের সংসার, বিছানা বিচ্ছেদের ফর্মুলাতেই বাজিমাত যুবকের

তিন স্ত্রীকে নিয়ে এক ছাদের তলায় সুখের সংসার। সন্তান মোট ন’জন। যদি মনে করেন এমন কীর্তি তো অনেক পুরুষেরই রয়েছে, তাহলে রাশিয়ার ভ্লাদিমির শহরের ইভান সুখবরের আসল কৃতিত্বের সিকিও আপনি জানেন না।

রেগে গেলেই নিজের স্ত্রীদের আজব এক শাস্তি দেন তিনি। যে শাস্তির ভয়ে ইভানের তিন স্ত্রী সহজে তাঁর কথার অন্যথা করেন না।

রাশিয়ায় একাধিক বিয়ের আইনি স্বীকৃতি নেই। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেল-এর খবর অনুযায়ী, ভ্লাদিমির শহরের ওব্লাস্ট অঞ্চলের বাসিন্দা ইভান দিব্যি তিন স্ত্রীকে নিয়ে সুখে সংসার করছেন। কারণ প্রথম স্ত্রী নাতালিয়ার পাশাপাশি আরও দুই তরুণী পারস্পরিক সম্মতির ভিত্তিতে তাঁর সঙ্গে পার্টনার হিসেবেই রয়েছেন। অনেকটা বিয়ে করা বউয়ের মতোই।

কিন্তু তিনজনকে কী ভাবে সামলান ইভান? ৩৪ বছর বয়সি ইভান প্রতিদিন পালা করে একজন স্ত্রীর সঙ্গে রাত কাটান। এতেই সুখী তাঁর তিন স্ত্রী। আর এখানেই লুকিয়ে ইভানের আসল ‘সাফল্য’। কোনও একজন স্ত্রীর উপরে রেগে গেলে একমাস তাঁকে নিজের বিছানার ধারে কাছে আসতে দেন না ইভান। অর্থাৎ যে স্ত্রীর উপরে তাঁর গোঁসা হয় তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক এক মাসের জন্য পুরোপুরি বন্ধ।

এই শাস্তির ভয়েই নাকি কাজ হয় ম্যাজিকের মতো। কারণ ইভানের ঘনিষ্ঠ না হয়ে যে থাকতেই পারেন না তাঁর তিন স্ত্রী। ফলে একমাসের ‘শারীরিক’ বিচ্ছেদের কথা ভাবতেই আঁতকে ওঠেন তাঁরা।

ইভান জানাচ্ছেন, বিরাট এক পরিবারের কর্তা হিসেবে থাকাই নাকি তাঁর শখ। তাঁর লক্ষ্য অন্তত পঞ্চাশ জন সন্তানের পিতা হওয়া। তার জন্য আরও বেশি সংখ্যক স্ত্রী চান তিনি।

যেমন ভাবা তেমন কাজ। প্রথম স্ত্রী নাতালিয়ার সঙ্গে এগারো বছর সংসার করার পরে আরও দুই ‘স্ত্রী’-র সঙ্গে সংসার শুরু করেন তিনি। নাতালিয়ার পরে তাঁর সংসারে আসেন অ্যানা। সম্প্রতি মদিনা নামে আরও এক মুসলিম মহিলাকে ‘স্ত্রী’ হিসেবে নিজের বাড়িতে নিয়ে এসেছেন ইভান। রাশিয়ার সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইভানের তিন স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক যথেষ্টই ভাল।

ইভানের বাড়িতে তাঁর নিজের একটি আলাদা ঘর রয়েছে। সেখানেই প্রতি রাতে ডাক পান তাঁর স্ত্রীরা। বর্তমানে তাঁর ন’জন সন্তানের মধ্যে ছ’জনের জন্ম দিয়েছেন প্রথম স্ত্রী নাতালিয়া। বাকি তিন সন্তান অ্যানার। কিছু দিনের ইভানের দশম সন্তানেরও জন্ম দেওয়ার কথা অ্যানার।

ইভান এবং তাঁর স্ত্রীরা প্রত্যেকেই চাকরি করেন। ফলে সন্তানদের ভাল ভাবে বড় করতে কোনও সমস্যা হবে না বলেই মনে করেন ইভান। আরও অনেক স্ত্রী চান তিনি। তবে একটা ছোট শর্ত আছে। ইভানের কথায়, ‘‘আমি যাঁকে স্ত্রী হিসেবে চাইব তাঁকে লম্বা, রোগা এবং সংবেদনশীল হতে হবে।’’

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com