রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

বেনাপোল সীমান্তে হুন্ডী ব্যাবসা রমরমা!রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

বেনাপোল সীমান্তে হুন্ডী ব্যাবসা রমরমা!রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

মাহমুদুল হাসান (যশোর) : যশোরের বেনাপোল সীমান্তে বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে কথিত মানিচেঞ্জ ব্যাবসায়ীরা,প্রকাশ্যে চলছে হুন্ডির রমরমা ব্যাবসা।অবাধে মানি লন্ডারিং এ জড়িয়ে স্বল্প সময়ে কোটিপতি বনছেন সীমান্তের চিহ্নিত ব্যাবসায়ী রা।অর্থের বিনিময়ে মিলছে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা তাই বাড়ছে হুন্ডির ব্যাবসা সরকার হারাচ্ছে প্রকৃত রাজস্ব।প্রশাসনিক নজরদারি জোরালো না থাকায় ও আইনি প্রয়োগের কঠোরতার অভাবে সহসায় হুন্ডির ব্যাবসায় জড়াচ্ছে ওঠতি বয়সী তরুনেরা যারা সকলে মাধ্যমিক পড়ুয়া বা কেউ সদ্য স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে কলেজে পা দিয়েছে।বেনাপোলের চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন এলাকায় ব্যঙের ছাতার মত গজিয়েছে কাগজপত্র ও অনুমতি বিহীন বিভিন্ন নামের মুদ্রা বিনিময় কেন্দ্র(মানি এক্সচেঞ্জ)অফিস যাদের ব্যাবসা প্রক্রিয়া সম্পূর্ন বে-অাইনি।সবকিছু স্থানীয় প্রশাসনের গোচরে থাকলেও মানিলন্ডারিং বন্ধ করতে প্রশাসনের নেই জোরালো ভূমিকা।উল্লেখ্য স্থানীয় হুন্ডি ব্যাবসায়ী দের শক্তিশালী সিন্ডকেট গড়ে তুলে প্রশাসনের উপর হতে নিচ তলা পর্যন্ত টাকা দিয়ে ব্যাবসা পরিচালনার গুঞ্জন এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে আছে।বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সদস্যরা হুন্ডি ব্যাবসায় জড়িতদের মাঝে মধ্যে ধরে পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করলেও অর্থের বিনিময়ে আইনি ফাঁক-ফোকড়ের সহয়তা নিয়ে সহসায় জেল-হাজত হতে বেরিয়ে বুকফুলিয়ে আবারো চালাচ্ছে হুন্ডি ব্যাবসা।বুধবার (০৯ জানুয়ারি ) দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় চেকপোস্ট এলাকার রফতানি গেটে অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ টাকা সহ জাকির গাজি (২৯)নামে একজন ভারতীয় পাচারকারী কে আটক করেন বিজিবি সদস্যরা।৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্নেল আরিফুল হক ৫ লাখ টাকা সহ পাচার কারী আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।এ ব্যাবসায় জড়িত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুকএক হুন্ডির টাকা বহনকারী দৈনিক সরেজমিন বার্তাকে জানান, ইমিগ্রেশন দিয়ে সরাসরি ও চোরাই পথে প্রতিদিন কোটি কোটি টাকা ভারত-বাংলাদেশ হয়ে থাকে আর এ কাজে বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার লোক জড়িত থাকে।ট্রাক ড্রাইভার,কলেজ ছাত্র,ইজিবাইক চালক ও সি এন্ড এফ এজেন্ট কর্মচারীরা অবাধে টাকা পাচার কাজে জড়িয়ে দৈনিক ২/৩ হাজার টাকা আয় করেন।সীমান্তে মানি লন্ডারিং বন্ধ করতে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের তৎপরতা বাড়ালে বের হবে রাঘব বোয়ালদের নাম,বন্ধ হবে অবৈধ ব্যাবসা।বৈদেশিক রেমিটেন্স বৃদ্ধি পাবে সরকার প্রকৃত রাজস্ব পাবে বলে মন্তব্য জানালেন বেনাপোল সীমান্তের বেসরকারী ব্যাংক কর্মকর্তারা।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com