বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

তামিমের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে ঢাকাকে ২০০ রানের লক্ষ্য দিল কুমিল্লা

তামিমের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে ঢাকাকে ২০০ রানের লক্ষ্য দিল কুমিল্লা

ড্যাসিং ওপেনার তামিম ইকবালের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে বিপিএলের ফাইনালে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ২০০ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য দিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের ফাইনালে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৯৯ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা।

ফাইনালের জন্য যেন সেরাটা তুলে রেখেছিলেন তামিম ইকবাল। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সাকিব-রাসেল-রুবেলদের ওপর স্টিম রোলার চালিয়ে তুলে নিলেন ঝড়ো সেঞ্চুরি। বিপিএল ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে সেঞ্চুরি হাঁকানোর কীর্তি গড়লেন ড্যাশিং ওপেনার। তার টর্নেডো ইনিংসে রানের পাহাড় গড়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস।
দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল মাত্র ৫০ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন। সেঞ্চুরি করার পর ব্যাট হাতে ঢাকার বোলারদের আরও বেশি কচুকাটা করে মাত্র ৬১ বলে ১৪১ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। যা বিপিএলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর।

বিপিএলে তামিমের চেয়ে বড় ইনিংস খেলেছে কেবল ক্রিস গেইল। গত আসরে রংপুরের পক্ষে ১৪৬ রান করেছিলেন এই ক্যারিবীয় দানব।

এর আগে, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়ায় বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের ফাইনাল। এতে ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান টস জিতে প্রতিপক্ষ কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায়। ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের শুরুতেই ইনফর্ম ব্যাটসম্যান এভিন লুইসকে (৬) হারিয়ে চাপে পড়ে কুমিল্লা। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই এভিন লুইসকে হারায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তাকে এলবিডব্লিওয়ের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরান টাইগার গতি তারকা রুবেল হোসেন। পরে এনামুল হক বিজয়কে সঙ্গে নিয়ে প্রথমে সাবধানী ব্যাটিংয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে এগিয়ে নেন ড্যাসিং ওপেনার তামিম ইকবাল।

তবে হঠাৎই কক্ষচ্যুত হন এনামুল। সাকিবের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরার আগে ৩০ বলে ২ চারে ২৪ রান করেন তিনি। এর রেশ না কাটতেই ভুল বোঝাবুঝিতে রানআউটে কাটা পড়েন ফর্মে থাকা শামসুর রহমান (০)। এরপর চাপ কাটিয়ে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পাশাপাশি দলকে বড় সংগ্রহ এনে দেন তামিম ইকবাল।

তামিমকে সঙ্গ দিয়ে শেষ পর্যন্ত ২১ বলে ১৭ রান নিয়ে মাঠ ছাড়েন কুমিল্লার অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। তবে তামিমের সঙ্গে তার ১০০ রানের জুটি কুমিল্লাকে বড় সংগ্রহ এনে দিতে মূল ভূমিকা রাখে।

বল হাতে ঢাকার বোলারদের অবস্থা ছিল সঙ্গিন। ১ উইকেট পেতে সাকিব খরচ করেছেন ৪৫ রান আর ৪৮ রান খরচ করেছেন রুবেল হোসেন। একমাত্র ব্যতিক্রম ক্যারিবীয় স্পিনার সুনীল নারাইন। ৪ ওভার বল করে উইকেট না পেলেও মাত্র ১৮ রান খরচ করেছেন তিনি।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com