সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন

‌১২ বছরের শিশুকে ‘ভাগিয়ে’ বিয়ে করার চেষ্টা যুবকের

‌১২ বছরের শিশুকে ‘ভাগিয়ে’ বিয়ে করার চেষ্টা যুবকের

টাঙ্গাইল (মির্জাপুর) প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ১২ বছরের এক শিশুকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করার চেষ্টা করেছে রনি মিয়া (২৫) নামে এক যুবক। গত সোমবার উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের আড়াইপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনায় ওই যুবককে এক বছরের সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল মঙ্গলবার মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. আজগর হোসেন তাকে এ সাজা দেন।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার আড়াইপাড়া গ্রামের ১২ বছরের এক শিশুকে বিয়ে করার কথা বলে ফুঁসলিয়ে নিয়ে যান রনি। সে একই ইউনিয়নের চান্দুলিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। গত সোমবার টাঙ্গাইল আদালতে নোটারি পাবলিক সম্পন্ন করে মঙ্গলবার সকালে রনি ওই শিশুকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরে আসে।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ওই শিশুর পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় ইউপি মেম্বার নজরুল ইসলামের সহায়তায় রনি এবং শিশুকে মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কশিমনার (ভূমি) কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। পরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর হোসেন বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন ২০১৭ অনুযায়ী রনি মিয়াকে এক বছরের সাজা এবং শিশুকে তার পরিবারের কাছে তুলে দেন।

এর আগে একই কায়দায় রনি মিয়া একাধিক বিয়ে করেছেন। বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. আজগর হোসেন জানান, নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে এক শিশুকে বাল্যবিয়ের চেষ্টার অপরাধে রনি মিয়া নামে এক যুবককে এক বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ওই শিশুকে তার পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com