রবিবার, ০৭ Jun ২০২০, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাদক ব্যবসার বিরোধীতা করায় সন্ত্রাসীদের হামলা গ্রামের বাড়ীতে জানাযা নামায শেষে, পারিবারিক কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত নাছির করোনা উপসর্গ নিয়ে বড় ভাইয়ের ৯ ঘন্টা পর ছোট ভাইয়েরও মৃত্যু ! হাটহাজারী পৌরসভায় করোনা উপসর্গ নিয়ে প্রবাসীর মৃত্যু! করোনা আক্রান্ত রোগীর কাছাকাছি গেলেই সতর্ক করবে স্মার্টফো-সময়ের ধারা বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে প্রায় ৬৬ লাখ করোনায় রানা প্লাজার মালিকের মৃত্যু লক্ষ্মীপুরে লিটন ট্রেডার্সের ১৩লক্ষ টাকা আত্মসাৎ-সময়ের ধারা স্মার্টফোন বলে দেবে আশপাশে কতজন করোনা রোগী, অপশনটি অ্যাপ চালু করুন হাঁটু পানিতে নেমে ধান কেটে দিল ছাত্রলীগ
সাংবাদিককে আগুন দিয়ে জ্যান্ত পুড়িয়ে হত্যা

সাংবাদিককে আগুন দিয়ে জ্যান্ত পুড়িয়ে হত্যা

ভারতের মধ্যপ্রদেশে দেশটির স্থানীয় এক সাংবাদিককে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। প্রদেশের সরকারি এক কর্মকর্তার বাড়িতে তার শরীরে আগুন দেয়া হয় বলে নিহত সাংবাদিকের স্বজনরা দাবি করেছেন। বুধবার সকালের দিকে মধ্যপ্রদেশের সাগর জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ বলছে, মধ্যপ্রদেশের কৃষি অধিদফতরের এক কর্মকর্তার বাড়ির সামনে থেকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় সাংবাদিক চক্রেশ জৈনকে উদ্ধার করেন তার পরিবারের স্বজনরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

প্রদেশের কৃষি কর্মকর্তা আমান চৌধুরীর বাড়ির সামনে থেকে ওই সাংবাদিককে উদ্ধার করা হয়। সাগর জেলা পুলিশ বলছে, ২০১৮ সালে আমান চৌধুরী সাংবাদিক চক্রেশ জৈনের বিরুদ্ধে তফসিলি জাতি ও উপজাতি নির্যাতন (প্রতিরোধ) আইনে একটি মামলা করেছিলেন। এই মামলা নিয়ে দু’পক্ষের বিবাদ চলছিল।

চক্রেশ জৈনের পরিবারের দাবি, কয়েকদিন পর মামলার শুনানির দিন নির্ধারিত ছিল। তার আগে এ বিষয়ে আলোচনার জন্য বুধবার সকালে চক্রেশ কৃষি দফতরের ওই কর্মকর্তার বাড়িতে যান। ওই সাংবাদিকের ভাই রাজকুমার জৈনের অভিযোগ, চক্রেশ যে ওই কর্মকর্তার বাড়ি গিয়েছিলেন, সেটা পরিবারের সব সদস্যই জানতেন। দীর্ঘক্ষণ তিনি না ফেরায় আমান চৌধুরীর বাড়ি গিয়ে চক্রেশকে প্রায় সম্পূর্ণ দগ্ধ অবস্থায় দেখতে পান।

রাজকুমার বলেন, ওই কর্মকর্তাই আমার ভাইকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে; যাতে সত্য উন্মোচন না হয়। পুলিশ বলছে, যখন চক্রেশ জৈনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়; তখন তার শরীরের ৯০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছিল। এ ঘটনায় অভিযুক্ত কৃষি কর্মকর্তারও শরীরের প্রায় ৩০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে। তিনিও হাসপাতালে চিকিত্সাধীন।

তার বিরুদ্ধে চক্রেশ জৈনের পরিবারের আনা অভিযোগ উড়িয়ে আমান চৌধুরী জানান, বুধবার সকাল ৮টার দিকে চক্রেশ তার বাড়িতে আসেন। কথাবার্তা চলাকালীন হঠাৎ চক্রেশ নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। পুলিশ বলছে, নিহত সাংবাদিকের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে আমান চৌধুরী ও আরও একজনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৭৪ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com