বৃহস্পতিবার, ১৮ Jul ২০১৯, ০৩:২৭ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশিকে খুনের দায়ে মিশরীয়র কারাদণ্ড

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশিকে খুনের দায়ে মিশরীয়র কারাদণ্ড

যুক্তরাষ্ট্রে এক প্রবাসী বাংলাদেশিকে হত্যার দায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড পেয়েছেন মিশরীয় এক নাগরিক।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তির নাম তাহা মেহরান (৫০)।

বৃহস্পতিবার এ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন ব্রঙ্কস সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জেমস ম্যাককার্টি।

রায়ে ১০ বছরের দণ্ড ও কারাভোগের পর আরও পাঁচ বছর তাহা মেহরানকে কর্তৃপক্ষের নজরদারিতে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

২০১৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য বকেয়া ভাড়ার জন্য বাংলাদেশি ভাড়াটে জাকির খানকে (৪৪) ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন বাড়ির মালিক তাহা মেহরান।

ব্রঙ্কস ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি ডারসেল ডি ক্লার্ক এ রায় প্রসঙ্গে বলেন, ২০১৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ব্রঙ্কসের ১০০১ লগ্যান অ্যাভিনিউতে অবস্থিত ভবনের সামনে জাকির খানকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। ৯ মাসের ভাড়া বকেয়া থাকায় তাহা ক্ষুব্ধ ছিলেন।

তিনি জানান, একই বাসায় থাকতেন জাকির ও তাহা। জাকির খান গাড়ি হাঁকিয়ে বাসায় আসা-যাওয়া করতেন দেখে হিংসায় জ্বলতেন মিশরীয় তাহা। বকেয়া ভাড়া আদায়ে সহায়তা চেয়ে কমিউনিটির অনেককে জানিয়ে সাড়া না পেয়ে নিকটস্থ ৪৫ প্রেসিঙ্কটে গিয়েও কোনো সহায়তা পাননি বলে আইন নিজের হাতে তোলে নেন তাহা।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, জাকিরের বুক এবং ঘাড়ে বেশ কয়েকবার আঘাতের পর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আরও ২৯টি আঘাতের চিহ্ন ছিল। গুরুতর অবস্থায় জাকিরকে নিকটস্থ জ্যাকবি মেডিকেল সেন্টারে নেয়ার পর জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, সিলেটের সন্তান জাকির খান আবাসন ব্যবসায়ী ছিলেন। কমিউনিটির সভা-সমাবেশেও অর্থ সাহায্য দিতেন। তবু মাসের পর মাস ভাড়া পরিশোধ না করার জন্য তার খুন হওয়ায় বিষয়ে বিস্মিত অনেকে। তাকে দাফনের পর স্ত্রী-সন্তানরা গৃহহীন হয়ে পড়েছিলেন। পরবর্তীতে সিটি প্রশাসনের সহায়তায় স্বল্প ভাড়ায় থাকার ব্যবস্থা হয়েছে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com