শুক্রবার, ১৯ Jul ২০১৯, ০২:১৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ভালুকায় কৃষকলীগ নেতাকে প্রাণনাশের হুমকি থানায় অভিযোগ বিভিন্ন স্কুলে ইসকনের কৃষ্ণ প্রসাদ বিতরণের প্রতিবাদ হাটহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ !  নেত্রকোনায় ছেলেধরাকে পিটিয়ে হত্যা: ব্যাগ থেকে শিশুর মাথা উদ্ধার (দেখুন ভিডিও) খেজুরপাতার শিল্প, মাসুমার বিখ্যাত হওয়ার গল্প ৭ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ঋতুপর্ণাকে জিজ্ঞাসাবাদ ময়মনসিংহের ভালুকায় তিনদিন ব্যাপী ফলদ বৃক্ষমেলার উদ্বোধন ফেসঅ্যাপের হাতে এখন ১৫ কোটি মানুষের তথ্য মিন্নির রিমান্ড বাতিলের আর্জি পাত্তাই পেল না হাইকোর্টে কালীগঞ্জে শিক্ষার্থীদের দিয়ে ভ্যানে করে ইট বহনের কাজ ময়মনসিংহের ভালুকায় ফারজানা হত্যার বিচার চেয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে পিতা
পুত্রবধূকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ : সন্তানের মা ডাক শুনা হলনা নিশুর

পুত্রবধূকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ : সন্তানের মা ডাক শুনা হলনা নিশুর

মো.আলাউদ্দীন,হাটহাজারীঃ 
হাটহাজারী উপজেলার ফটিকা গ্রামের মেহেদী পাড়ায় শুশুড় বাড়ীর লোকজন কর্তৃক প্রবাসীর স্ত্রী মাত্র পাঁচ মাসের শিশু সন্তানের মা নিশু(১৯)কে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার(০৬ জুলাই) দুপুরের দিকে পৌরসভার ফটিকা গ্রামের পূর্ব মেহেদী পাড়ার দুলা মিয়া সওদাগর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় জানা গেছে, জান্নাতুন নাঈম নিশুর বাবা মো.সোলায়মানের বাড়ী রাউজান উপজেলার চিকদাইর আমিনুর রহমান খলিফার বাড়ীতে হলেও ফটিকার কড়িয়ার দিঘীর পাড়ের আবু ডাক্তার বাড়ী প্রকাশ বৈদ্য পাড়াস্থ নানার বাড়ীতেই থাকতেন নিহত নিশুর পরিবার। মাত্র দুই বছর পূর্বে একই গ্রামের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব মেহেদী পাড়ার দুলা মিয়া সওদাগর বাড়ীর মো.ফারুক আহম্মদের পুত্র প্রবাসী ফোরকানের সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় নিশুর। তাদের সংসারে ফয়জুল্লাহ ফজু নামের মাত্র পাঁচ মাসের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই শশুড় বাড়ীর লোকজন দ্বারা বার বার গৃহবধূ নিশু নির্যাতনের স্বীকার হয়ে আসছিলো। তারি ধারাবাহিকতায় নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে গিয়ে শশুড় শাশুড়িসহ আরও কয়েকজন মিলে গলা টিপে পুত্রবধূ নিশুকে হত্যা করে। একাধীক সূত্র জানায়, হত্যার পর ঘটনা অন্যদিকে প্রবাহিত করতে শ্বশুড়, শাশুড়ী নিহত পুত্রবধূ নিশুকে সদরের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। এদিকে নিহতের পরিবার খবর পেয়ে সদরের ঐ হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে অভিযুক্ত শ্বশুড় মো.ফারুক আহম্মদকে (৬৫) গণপিটুনি দিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে পেয়ে হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল্লাহ আল মাসুম এর নেতৃত্বে মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দীন জাহাংগীরসহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে গুরুতর আহত শ্বশুড় ফারুক আহম্মদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পুলিশি পাহারায় চমেক হাসপাতালে এবং হত্যার স্বীকার গৃহবধূ নিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চমেক মর্গে প্রেরন করে । বিয়ের পর থেকে এ ২ বছরের মধ্যে পুত্রবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় অনেকবার পারিবারিক ভাবে শালিস বৈঠক হয়েছিলো বলে সূত্রে জানা গেছে।
নিহতের নানা মো.শফিউল্লাহ জনান, তারা নিশুকে নির্মমভাবে নির্যাতন করতে করতে গলা টিপে হত্যা করেছে। উপস্থিত সবাই এবং পুলিশ রিপোর্ট তৈরী করার সময় গলায় আঘাতের চিহ্ন দেখেছে। তবে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত ঘটনার দিন শনিবার রাত ৯টায়ও নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়ের করা না হলেও মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি। কান্নাজড়িত কন্ঠে তিনি আরও বলেন, শিশুকাল থেকেই নিশুরা নানার বাড়ীতে থাকতো, এখানেই বেড়ে উঠেছে সে। নিশুকে নির্মমভাবে হত্যা করে মাত্র পাঁচ মাসের মাসুম শিশুকে যারা এতিম করে দিয়েছে আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে সেসব হত্যাকারীদের বিচার চাই। এদিকে ঘটনার খবর পেয়েই নিহতের স্বামী ফোরকান প্রবাস থেকে দেশের বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন বলেও একটি সূত্রে জানা গেছে।
এদিকে অভিযুক্ত শ্বশুর বলেন, তার পুত্রবধূ নিশু শিশুকে দুধ খাওয়াতে গিয়ে স্ট্রোক করে মারা গেছে। পরে তাকে নিয়ে সদরের একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল্লাহ আল মাসুম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের শ্বশুর-শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে।আর ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা সম্ভব হবে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com