রবিবার, ১৪ Jul ২০১৯, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বান্দরবান, পানিবন্দি ২০ হাজার মানুষ

যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বান্দরবান, পানিবন্দি ২০ হাজার মানুষ

টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে চট্টগ্রাম-বান্দরবান সড়কের সাতকানিয়া উপজেলার বাজালিয়া এলাকা পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় পাঁচদিন ধরে সারাদেশের সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ। চালকরা জানিয়েছেন, ডুবন্ত সড়কে ভ্যানে গত কয়েকদিন মানুষ পারাপার হয়ে গন্তব্যে পৌঁছালেও এখন তা একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে। ওই সড়কে গলাসমান পানি।

বান্দরবান বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুব্রত দাশ ঝুন্টু জানান, গতকালের চেয়ে বান্দরবান-কেরানীহাট সড়কে পানি অনেক বেশি। কোনো ধরনের বাস চলাচল করতে পারছে না। তবে রাস্তায় পানি কমে গেলে বাস চলাচল স্বাভাবিক হবে।

এদিকে বান্দরবান-রাঙ্গামাটি সড়কের বালাঘাটা এলাকায় পাহাড়ি ঢলে সড়ক ডুবে থাকায় রাঙ্গামাটির সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বান্দরবান সদরের আর্মিপাড়া, শেরে বাংলা নগর, বালাঘাটা, আমবাগানসহ আশপাশের কয়েকটি এলাকায় এখনো ডুবে আছে। ডুবন্ত সড়কের ওপর দিয়ে চলছে নৌকা। কেউ কেউ বন্যার পানিতে জাল ফেলে মাছ ধরছেন।

এদিকে কয়েকজন জনপ্রতিনিধি জানিয়েছেন, সাঙ্গু নদীর পানি এখনও বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বান্দরবান-কেরানীহাট সংযোগ সড়ক এবং অভ্যন্তরীণ রুটগুলো পাঁচদিন ধরে বন্ধ থাকায় খাদ্যপণ্যের ওপর প্রভাব পড়েছে। সবজিক্ষেত ডুবে যাওয়ায় বাজারে দেখা দিয়েছে সবজি সংকট।

বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শামীম হোসেন জানান, বান্দরবান জেলায় ২০ হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া গেছে ৪৫০ মেট্রিক টন চাল। তবে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় এলাকাগুলোতে ত্রাণ পৌঁছাতে বেগ পেতে হচ্ছে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com