বৃহস্পতিবার, ১৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ময়মনসিংহের ভালুকায় ডাকাতিয়া ইউনিয়ন অর্নাস এসোসিয়েশন আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী ও সংবর্ধনা ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ভেলাগুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মহির উদ্দিন সরকারের পাশাপাশি যুব সমাজকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে- কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু এমপি ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এ্যাডভোকেট আঞ্জুমানআরা শাপলা ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ওসি মোস্তাফিজার রহমান ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু সাঈদ ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন চন্দ্রপুর ইউনিয়নের কাজী শরিফুল ইউএনও রবিউল হাসানের ঈদ শুভেচ্ছা ময়মনসিংহের ভালুকায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুেন্নছা মজিব এর ৮৯ তম জন্মবাষিকী উপলক্ষে উঠান বৈঠক ঢাকায় যুবরাজ, দাম ৩০ লাখ!
গণপিটুনির শিকার ভ্যানচালক ছেলেধরা ছিলেন না, গ্রেফতার ৬

গণপিটুনির শিকার ভ্যানচালক ছেলেধরা ছিলেন না, গ্রেফতার ৬

টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় ছেলেধরা গুজবকে কেন্দ্র করে মিনু মিয়া (৩০) নামের এক ভ্যানচালককে অমানবিক নির্যাতনের ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- কালিহাতী উপজেলার নাগা চৌধুরীবাড়ি গ্রামের মৃত তরিকুল আলম সিদ্দিকীর ছেলে মাইনুল হক হিটু (৩৭), নাগা গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র মালুর ছেলে প্রভাত চন্দ্র মালু (১৯), একই গ্রামের আনোয়ার হোসেন খানের ছেলে শিশির আহম্মেদ খান (৩২), মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মিজানুর রহমান তালুকদার (৪৭), আনোয়ার হোসেন খানের ছেলে ওমর (৩২) এবং পালিমা গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে আলামিন ইসলাম (১৯)।

মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং ডেকে ছয়জনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ২১ জুলাই কালিহাতী উপজেলা নারান্দিয়ার সয়া হাটে ছেলেধরা সন্দেহে হামলার ঘটনায় ভূঞাপুর উপজেলার টেপিবাড়ি গ্রামের ভ্যানচালক মিনু মিয়া আহত হন। এ ঘটনায় মিনু মিয়ার ভাই রাজিব হোসেন সোমবার রাতে বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শফিকুল ইসলাম আরও বলেন, ২১ জুলাই একইদিন জেলার তিন উপজেলায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হন তিন ব্যক্তি। তাদের মধ্যে কোনো ব্যক্তিই ছেলেধরা ছিলেন না। কাজেই এসব কাজ থেকে বিরত থাকুন সবাই। যদি কাউকে সন্দেহ হয় তাহলে পুলিশকে জানান।

গত ২১ জুলাই জেলার তিন উপজেলায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার তিনজন। তারা হলেন- ভূঞাপুর উপজেলার টেপিবাড়ি গ্রামের ভ্যানচালক মিনু মিয়া, গাজীপুরের আকাশ ও ঘাটাইল উপজেলার সোহরাব।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com