শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

রাতে সবচেয়ে ভালো ঘুমান ভারত-সৌদির নাগরিকরা

রাতে সবচেয়ে ভালো ঘুমান ভারত-সৌদির নাগরিকরা

অনেকেরই রাতে ভালো ঘুম হয় না। প্রযুক্তির এই যুগে বেশির ভাগ মানুষেরই ঘুমের ব্যাঘাত হওয়াটা খুব স্বাভাবিক একটি ঘটনায় পরিণত হয়েছে। অনেকেই আবার এই সমস্যার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্নও হচ্ছেন। তবে ভালো ঘুমের ক্ষেত্রে এগিয়ে আছে ভারত। সেখানকার অধিকাংশ মানুষেরই রাতে ভালো ঘুম হয়। এই তালিকায় ভারতের পরেই রয়েছে সৌদি আরব এবং চীন।

ফিলিপ গ্লোবাল স্লিপ সার্ভে ২০১৯-এর একটি অনলাইন জরিপ থেকে এ তথ্য উঠে এসেছে। ১২টি দেশের ১৮ বছর এবং তার বেশি বয়সী ১১ হাজার ছয়জনের ওপর এই জরিপ চালানো হয়। ওই জরিপে জানানো হয়েছে যে, বিশ্বব্যাপী প্রায় ৬২ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ বলছেন, তারা রাতে বিছানায় গেলে ঘুমাতে পারেন না।

এক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়ার অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। আর জাপানের লোকজন এই তালিকায় আরও পিছিয়ে। তাদের বেশিরভাগই রাতে ভালোভাবে ঘুমাতে পারেন না। তাদের ঘুমের অভ্যাস খুবই খারাপ।

বিশ্বব্যাপী প্রাপ্ত বয়স্করা কর্মদিবসের রাতে ৬ ঘণ্টার বেশি ঘুমান। আর ছুটির দিনে ঘুমান ৭ ঘণ্টার বেশি। প্রতি ১০ জনের মধ্যে চারজন প্রাপ্ত বয়স্কই জানিয়েছেন যে, গত পাঁচ বছরে তাদের মোটেও ঘুম হচ্ছে না। খুবই বাজে পরিস্থিতির মুখোমুখি হচ্ছেন তারা। মাত্র ২৬ শতাংশ জানিয়েছেন যে, আগের চেয়ে তাদের ঘুম ভালো হচ্ছে। অপরদিকে ৩১ শতাংশ বলছেন যে, তারা আগে যেমন ঘুমাতেন এখনও তেমনি ঘুমাচ্ছেন। এক্ষেত্রে তাদের কোন পরিবর্তন আসেনি।

ফিলিপ গ্লোবাল স্লিপ সার্ভের ওই জরিপে জানানো হয়েছে যে, কানাডার ৬৩ শতাংশ এবং সিঙ্গাপুরের ৬১ শতাংশ মানুষের নানা ধরনের চিন্তা এবং চাপের কারণে তাদের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটছে।

বিশ্বব্যাপী চিন্তা/উদ্বেগ, ঘুমের পরিবেশ, স্কুল-কলেজের সময়, বিনোদন এবং স্বাস্থ্যের বিভিন্ন সমস্যার কারণে ঘুমের সমস্যায় পড়ছেন বেশিরভাগ মানুষ। রাতে ঘুম ভালো না হলে তা স্বাস্থ্যের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। বিশেষ করে দিনের বেলার কাজকর্মের বেশ ক্ষতি করে। তাই কর্মক্ষম ও সতেজ থাকতে একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের প্রতিদিন রাতে আট ঘণ্টার মতো ঘুমানো উচিত।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com