শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

মুসলিম বিদ্বেষী জালিম মোদিকে সম্মাননা দিয়ে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম, ঘৃন্য কাজ করেছে আরব দেশ – বাবুনগরী

মুসলিম বিদ্বেষী জালিম মোদিকে সম্মাননা দিয়ে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম, ঘৃন্য কাজ করেছে আরব দেশ – বাবুনগরী

মো.আলাউদ্দীন,হাটহাজারীঃ
সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন কর্তৃক উগ্র হিন্দুত্ববাদী ও মুসলিম বিদ্বেষী জালিম মোদিকে সর্বোচ্চ সম্মাননা দেয়ার কঠোর সমালোচনা করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।
 
সোমবার (২৬ আগস্ট) সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, নরেন্দ্র মোদি উগ্রবাদী ও কট্টর ইসলাম বিদ্বেষী। ভারতের মুসলমানদের উপর রাষ্ট্রীয়ভাবে সন্ত্রাস চালাচ্ছে। গো হত্যার মিথ্যা অভিযোগ তোলে বিভিন্ন সময়ে মুসলমানদের উপর যেই অত্যাচার, নির্যাতন চালিয়েছে, চালাচ্ছে তা নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখেনা।
 
ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্তির মাধ্যমে কাশ্মীরের বিশেষ স্বাতন্ত্র্য ও মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে এই জালিম মোদি।ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ এবং সাংবাদিকদেরকে বের করে দিয়ে পুরো কাশ্মীরকে বিশ্ব থেকে আলাদা করে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম বর্বরতা চালাচ্ছে এই জালেম মোদি সরকার।যখন তখন যাকে তাকে হত্যা, গ্রেফতার ও নির্যাতন করা হচ্ছে।এই মোদি সরকার বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় দজ্জাল ও বড় জঙ্গী।
 
আল্লামা বাবুনগরী বলেন,মোদির  নির্যাতনে যখন কাশ্মীরে মুসলমানদের রক্তের বন্যা বইছে,মজলুম মুসলমানদের রক্তে যখন এই জালিম মোদির হাত রঞ্জিত করছে,আকাশ-বাতাসে যখন কাশ্মীরের মজলুম মুসলমানের আর্তনাদ আর বুকফাটা কান্নার আওয়াজ ভেসে আসছে ঠিক সেই সময়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের এমন ঘৃন্য কাজ মুসলিম উম্মাহর কলিজায় আঘাত করেছে।
 
কাশ্মীরের মজলুম মুসলমানদের পক্ষ না নিয়ে উল্টো এ নির্যাতনের মূল হোতা জালিম মোদিকে এ সম্মাননা দিয়ে আরব আমিরাত কাশ্মীরী মজলুম মুসলমানের উপর জালেম মোদির অমানবিক নির্যাতনকে সমর্থন দিয়েছে। জুলুমকারী আর জুলুমের পক্ষাবলম্বনকারী উভয়েই সমান অপরাধী।
 
জালিমদের পক্ষ অবলম্বন, তাদের কাজে সন্তুষ্টি জ্ঞাপন এবং তাদেরকে সহযোগিতা করতে পবিত্র আল কুরআনে নিষেধ করা হয়েছে। জালিম এবং তার কাজে সহযোগিতা প্রদানকারী একই পরিণতি ভোগ করবে মর্মে পবিত্র কুরআনে আল্লাহতায়ালা এরশাদ করেন, ‘যারা জালিম তাদের প্রতি তোমরা ঝুঁকে পড়ো না।অর্থাৎ তাদের সহযোগীতা করো না।
তাহলে তোমাদেরও অগ্নি স্পর্শ করবে।’ [সুরা হুদঃ আয়াত নং১৩] 
 
আরবের ক্ষমতাসীন শাসকগোষ্ঠী তাদের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য আমেরিকা রাশিয়ার পা-চাটা গোলামী করছে,মুসলিম বিদ্বেষী জালিম মোদিকে সম্মাননা দিয়ে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম,ঘৃন্য কাজ করেছে আরব আমিরাত ও বাহরাইন।এবং অন্যান্য আরব দেশগুলো নীরব থাকার কোন রহস্য আমাদের বুঝে আসছেনা।পৃথিবীর ইতিহাসে যুগের পর যুগ এই নিরবতা  কালো অধ্যায় হয়ে থাকবে।
 
ক্ষণস্থায়ী এ ক্ষমতার জন্য আরবের শাসকগোষ্ঠী যা মন চায় তাই করছে।এ ক্ষমতা একদিন থাকবে না,কিন্তু তাদের এ ঘৃন্য কর্মকাণ্ডের দরূণ যুগ যুগ ধরে মানুষ তাদের প্রতি থুথু নিক্ষেপ করবে।ইতিহাস কখনো তাদেরকে ক্ষমা করবে না।
 
কোন মুসলিম দেশ থেকে সম্মাননা নয় বরং ভারতে ও কাশ্মীরে মুসলমানদের উপর নির্যাতনের দায়ে আরব বিশ্বের নেতৃত্বে সমগ্র মুসলিম কান্ট্রিগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে মোদিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা এবং তার বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষণা করা সময়ের অপরিহার্য দাবী। মুসলিম শরীফের হাদীসে আল্লাহর রাসুল সা.ইরশাদ করেছেন বিশ্বের সমগ্র মুসলিম এক দেহের বিভিন্ন অঙ্গের মতো। চোখে ব্যথা হলে পুরো শরীরে এটা অনুভব হয়।মাথায় ব্যথা হলে পুরো শরীর জর্জরিত হয়।ঠিক তেমনি বিশ্বের কোন এক প্রান্তে যদি কোন একজন মুসলমানের উপর জুলুম নির্যাতন করা হয় তাহলে সমগ্র মুসলিম এর প্রতিবাদ করতে হবে।প্রয়েজনে বুকের তাজা রক্ত ঝড়াতে হবে।ঈমান ও ইসলামের বন্ধনে কোন কাটাতার বাঁধা হয়ে দাড়াতে পারে না।
 
আসল ক্ষমতার মালিক মহান আল্লাহ তায়া’লার বিধান মতে এই সময়ে এই জালিম মোদিকে সম্মাননা দেওয়া সম্পূর্ণ ইসলাম বিরোধী ও শরীয়ত পরিপন্থী কাজ।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com