শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

নারীদের কল্যাণে কাজ করছে আনিকার ‘নিবেদিতা’

নারীদের কল্যাণে কাজ করছে আনিকার ‘নিবেদিতা’

ফিচার ডেস্ক :  আনিকা ইসলাম। ‘নিবেদিতা’ নামের একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা। শিক্ষাজীবন শেষ করে কর্পোরেট দুনিয়ায় প্রবেশের পর নিজের স্বপ্ন নিয়ে পূর্ণোদ্যমে কাজ শুরু করেন। কর্মক্ষেত্রে নারীর প্রবেশের মধ্য দিয়ে আসবে নারীর ক্ষমতায়ন, উন্মুক্ত হবে নারী অধিকারের পথ- এমন লক্ষ্য নিয়েই তার এ সংগঠন। বর্তমানে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় চলছে সংগঠনের কাজ।

নিবেদিতা’র শুরুটা হয়েছিল মূলত ফেসবুককে কেন্দ্র করে। যার স্লোগান ‘তুমিই তোমার তুলনা’। বর্তমানে সংগঠনটি নারীদের দক্ষতা বৃদ্ধি করতে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের আয়োজন করে যাচ্ছে। শুধু তা-ই নয়, নারী উদ্যোক্তারা তাদের ব্যবসা বাড়ানোর শিক্ষা পেয়ে থাকেন এখান থেকে। এ পর্যন্ত ৩০০ জনের বেশি নারী উদ্যোক্তা নিবেদিতার তালিকাভুক্ত হয়েছেন। যাদের সব ধরনের সাহায্য করে সংগঠনটি।

কোন কোন প্রতিষ্ঠান উদ্যোক্তাদের ঋণ দিয়ে থাকে বা কিভাবে সহজে ঋণ পাওয়া যেতে পারে, সে বিষয়েও সদস্যদের ধারণা দেয় নিবেদিতা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক গ্রুপে রয়েছে ১৫ হাজার সদস্যের সঙ্গে জ্ঞানমূলক আলোচনা বা দক্ষতা বাড়ানোর নানা রকম কন্টেন্ট শেয়ার করার ব্যবস্থা।

নিবেদিতার প্রতিষ্ঠাতা আনিকা ইসলাম বলেন, ‘শুরুর দিকে ঠিক কী নিয়ে কাজ করতে চাচ্ছেন, এটাই মানুষকে বোঝাতে কষ্ট পেতে হতো। দক্ষতা সরাসরি বাহ্যিক জিনিস নয় বলে মানুষের আগ্রহ কিছুটা হলেও কম ছিল। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দক্ষতার প্রয়োজনীয়তা সবাই বুঝেছে। মানুষের জন্য কিছু করতে পারার মধ্যে অদ্ভুত একটি প্রশান্তি আছে। তাছাড়া মেয়েদের শেখার আগ্রহ এবং ভালো কিছু করার আগ্রহ আমাকে সবসময়ই উৎসাহ দিয়ে থাকে।’

চলতি বছরের ৩১ আগস্ট ‘নিবেদিতা উইমেন সামিট ২০১৯’ আয়োজন করে সংগঠনটি। নারী উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন সমাজের প্রত্যেকটি অংশে নিশ্চিত করা এবং নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কুমিল্লায় এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সম্প্রতি আধুনিকতম সংযোজন ই-কমার্সের সঙ্গে যুক্ত বেশ কয়েকজন প্রতিনিধি উপস্থিত থেকে তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা ক্ষুদ্র ই-কমার্স উদ্যোক্তা এবং ভবিষ্যৎ উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বিনিময় করেন। সম্মেলনে নিবেদিতার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সব শিক্ষার্থী ছাড়াও প্রশাসনের প্রতিভাসম্পন্ন ব্যক্তি এবং তরুণ প্রজন্মের কয়েকজন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

ই-কমার্স এবং দক্ষতা বাড়ানোর সঙ্গে যুক্ত সরকারের প্রতিনিধিরা কীভাবে কেউ সরকারি পূর্ণ সুবিধা ভোগ করতে পারেন, তা তুলে ধরেন। সম্মেলনে প্রায় ৩শ’ নারী উদ্যোক্তা ও আগ্রহী নারী উদ্যোক্তারা অংশ নেন। আগামী ৫ বছরের মধ্যে কয়েকটি বিভাগে অন্তত ১০ হাজার নারীকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে সংগঠনটি।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com