সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

মুক্তিপ্রাপ্ত তিন ছবিতেই করোনার প্রভাব

মুক্তিপ্রাপ্ত তিন ছবিতেই করোনার প্রভাব

নিয়ম ভেঙেই হোক আর নিয়ম মেনেই হোক- এক সপ্তাহে তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে, এটিই আসল খবর। কিন্তু তিনটি ছবিই দর্শকখরায় পড়েছে। এমনিতেই সিনেমা হলে দর্শক নেই বললেই চলে। আবার এর মধ্যে শুরু হয়েছে করোনা ভাইরাসের আক্রমণ। গতকাল দেশে তিনজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। তাই নতুন মুক্তি পাওয়া তিনটি ছবিই করোনার প্রভাবে দর্শকহারা হবে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে নিয়ম হচ্ছে, দুই ঈদ ছাড়া বছরের অন্যান্য সময় এক সপ্তাহে দুটির বেশি ছবি মুক্তি দেওয়া যাবে না। কিন্তু চলতি সপ্তাহে হুট করেই মুক্তি পেয়েছে তিনটি ছবি। জানা গেছে, নিয়ম ভাঙার এমন সিদ্ধান্ত এসেছে প্রযোজকদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে। এ বিষয়ে প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেন, “সপ্তাহে দুটি ছবির বেশি মুক্তি দেওয়ার নিয়ম নেই। শুধু প্রযোজকের আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা আছে এ ধরনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা ব্যতিক্রম সিদ্ধান্ত হঠাৎ হঠাৎ নিই।

এ সপ্তাহে তিনটি ছবি মুক্তির বিষয়টিও তেমনই। ‘শাহেনশাহ’ ও ‘চলো যাই’ ছবি দুটির আগে থেকে মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত ছিল। শেষ মুহূর্তে ‘হলুদবনি’ যুক্ত হয়েছে। এ ছবির প্রযোজক জানিয়েছেন, এখনই যদি ছবিটি মুক্তি না দেওয়া যায়, তা হলে প্রযোজকের আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। ছবিটি শুধু ঢাকার দুটি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে। এই সপ্তাহের বিষয়টি অন্য সময়ের সঙ্গে না মেলাতে অনুরোধ করছি। এটাকে বিশেষ বিবেচনায় ছবি মুক্তি বলতে পারেন। এখন শুরু হয়েছে করোনা আতঙ্ক। প্রযোজক হিসেবে খুবই টেনশনে আছি।”

মুক্তি পাওয়া ছবি তিনটি হচ্ছে ‘শাহেনশাহ’, ‘চলো যাই’ ও ‘হলুদবনি’। এর মধ্যে ‘শাহেনশাহ’য় শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া ও রোদেলা জান্নাত। ছবিটি পরিচালনা করেছেন শামীম আহমেদ। মাসুমা রহমানের ‘চলো যাই’ ছবিতে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, তাসনুভা তিশা প্রমুখ। ‘হলুদবনি’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন যৌথভাবে তাহের শিপন এবং মুকুল রায়চৌধুরী। প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও পরমব্রত।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com