মঙ্গলবার, ০২ Jun ২০২০, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
লক্ষ্মীপুরে নতুন করে ১১৯ জনের টেস্ট করে ২২ জনের করোনায় পজেটিভ-সময়ের ধারা জালালপুর ইকো রিসোর্ট এ কম্ব্যাটিং কোভিট ১৯ এর উপর কর্মশালা হরিপুরে এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় আত্মহত্যা নিকলী হাওর আর জালালপুর ইকো রিসোর্ট এর ভ্রমণ গদ্য লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন করলো সবুজ বাংলাদেশ ইনাফা-সময়ের ধারা কটিয়াদীতে ইসাহাক ভূঁইয়া ফাউন্ডেশন ও জালালপুর ইকো রিসোর্টের উপহার সামগ্রী প্রদান ফরিদপুরে জেলার ভাংগায় সাংবাদিকদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ঈদ পূন:মিলনী অনুষ্ঠান বাংলাদেশ নতুন ২৫২৩ জনের করোনা শনাক্ত-সময়ের ধারা একজন আর্দশ শিক্ষকের গল্প লক্ষীপুর রামগতিতে খালের পানিতে ভেসে উঠল কৃষকের লাশ-সময়ের ধারা
করোনা যোদ্ধা হিসেবে একজন সফল চেয়ারম্যান কামাল হোসেন হাদী

করোনা যোদ্ধা হিসেবে একজন সফল চেয়ারম্যান কামাল হোসেন হাদী

বিশেষ প্রতিনিধি: সমাজের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিটি মানুষের এক-একটি স্বপ্ন থাকে। কিন্তু সেই স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই একের পর এক আসতে থাকে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। আজ এমনই একজন সফল সমাজ সেবক নিয়ে কথা বলব। যিনি অনেক বাধা ও প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে সাধারণ মানুষের মন জয় করে একজন সফল ও শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এবং শ্রেষ্ঠত্ব্যের পুরুস্কার হিসেবে স্বর্ণপদক পেয়েছেন। তিনি হলেন রাজানগর ইউনিয়নের মাটি ও মানুষের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ও সফল সমাজসেবক আলহাজ্ব মো:কামাল হোসেন হাদী । তিনি রাজানগর ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে রুপরেখা রয়েছে সেই রুপরেখা বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। এছাড়াও চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। তার সফলতার কারণে স্থানীয় পর্যায়ে দলের ভাবমূর্তির ও উন্নয়ন হয়েছে। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক তিনি। ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোন অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই সফল মানুষটি দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের আপদ-বিপদে ছুঁটে যান। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে সুপরিচিতি লাভ করেছেন। এলাকার সাধারণ মানুষের ভাষ্যমতে, “আমরা নেতা বা চেয়ারম্যান বুঝিনা। হাদী ভাই একজন ভাল মনের দানশীল মানুষ। তিনি একজন কর্মঠ ও সৎ ব্যক্তি। তিনি চেয়ারম্যান পদে থাকলে আমাদের তথা এলাকার উপকার ও উন্নয়ন দু’টুই হবে। আমাদের দু:খ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। নির্বাচনকালীন সময়ে সাধারণ জনগনকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে একজন সফল ও জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সবশ্রেনীর মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন রাজানগর ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: কামাল হোসেন হাদী।” জানতে চাইলে এ প্রতিবেদককে এভাবেই বলছিলেন এলাকার সাধারণ মানুষ।
শুধু তাই নয়, মহামারি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি নিয়েও তিনি সজাগ রয়েছেন। সারা বিশ্বে করোনার ভয়াবহতায় যখন বিপর্যস্থ জনজীবন। সাধারণ খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষ যখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। ঠিক সে মুহুর্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে এসেছেন রাজানগর ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কামাল হোসেন হাদী।
সারাদেশে যখন ত্রাণের জন্য হাহাকার। নানা রকম কেলেঙ্কারির খবর আসছে বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান/জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে। ঠিক সেসময় শুধু সরকারি ত্রাণের অপেক্ষায় বসে না থেকে ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় মানুষের ঘরে ঘরে খাবার পৌছে দিচ্ছেন রাজানগর ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রিয় ও স্বর্ণপদক প্রাপ্ত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কামাল হোসেন হাদী।
রাজানগর ইউনিয়নে করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পরা গরীব, অসহায় ও সংকটাপন্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার ও ১০ টাকা কেজি ধরে ৩০ কেজি করে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ করছেন। সরকারি ত্রাণ সামগ্রী ছাড়াও ইতোমধ্যে নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকেও অনেক অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছেন যা প্রশংসার দাবী রাখে।
সব ধরনের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে প্রতিটি ওয়ার্ডের গ্রামে গ্রামে শিক্ষক, সাংবাদিক, দলীয় নেতা-কর্মী ও ইউপি সদস্যদের সমন্বয়ে সেচ্ছাসেবী গ্রুপ তৈরী করে অসহায় মানুষের খোঁজ খবর নিয়ে তাদের ঘরে ঘরে খাবার পৌছে দিচ্ছেন আলহাজ্ব কামাল হোসেন হাদী।
এ ছাড়াও, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় করোনার সংবাদ ছড়ানোর পর পরই বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর আগে থেকেই রাজানগর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে সচেতনতামুলক কার্যক্রম চালিয়েছেন এবং সচেতনতামুলক লিফলেট, হ্যান্ডওয়াশ ও স্যানিটাইজার বিতরণ করেছেন তিনি।
বৈশ্বিক এই দুর্যোগ মোকাবেলায় সময় এসেছে মানুষের পাশে মানুষের দাঁড়ানোর। প্রধানমন্ত্রী আহ্বান জানিয়েছেন সবাইকে মানবিকতার পরিচয় দিতে। অসহায়দের মাঝে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে।
প্রধানমন্ত্রীর সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে সামনে সাঁড়ির করোনা যোদ্ধা হিসেবে রাজানগর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: কামাল হোসেন হাদী মানব সেবার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তা সত্যি ব্যতিক্রম এমনটাই মনে করেন রাজানগর ইউনিয়নের সচেতন মহল।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com