শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন

12
রিপোর্টারের ডায়েরি’র লেখাগুলো সুপাঠ্য, ভাষা প্রাঞ্জল এবং মার্জিত – তথ্যমন্ত্রী

রিপোর্টারের ডায়েরি’র লেখাগুলো সুপাঠ্য, ভাষা প্রাঞ্জল এবং মার্জিত – তথ্যমন্ত্রী

13

মো.আলাউদ্দীনঃ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের হাতে একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদার তার নিজের লেখা ‘রিপোর্টারের ডায়েরি’ নামক বইটি তুলে দিয়েছেন।

শনিবার(১০ সেপ্টেম্বর)দুপুরের দিকে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে সাক্ষাতকালে বইটির লেখক একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদার নিজে তথ্যমন্ত্রীর হাতে তার সদ্য প্রকাশিত এই বইটি তুলে দেন।

এ সময় জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদার বলেন, দীর্ঘ সময় দেশ-বিদেশে চ্যালেঞ্জিং সাংবাদিকতা করে বহু ঝাল, মিষ্টিময় অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছি। পাশাপাশি কাছ থেকে দেখেছি বহু নামকরা সাংবাদিক, নামকরা প্রতিষ্ঠানের নতজানু, বোঝাপড়ার সাংবাদিকতা। কখনো স্বাধীন সাংবাদিকতা করতে পেরেছি, কখনো কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেওয়া সীমানা প্রাচীরে আটকে গেছি। সেইসব অব্যক্ত কথাগুলোই সন্নিবেশিত হয়েছে ‘রিপোর্টারের ডায়েরি’নামক বইটিতে।

কিছুটা সময় বইটি পড়ে দেখার পাশাপাশি লেখককে ‘সম্মানি’ তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এ সময় তিনি বলেন, লেখক দেশ-বিদেশে সাংবাদিকতার অভিজ্ঞতা তুলে ধরে ‘রিপোর্টারের ডায়েরি’ বইটি লিখেছেন । তার নিজের জীবনে, সাংবাদিকতা জীবনের নানা ঘাত-প্রতিঘাতের অনেক ঘটনা বইটিতে উঠে এসেছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, রিপোর্টারের ডায়েরি’র লেখাগুলো সুপাঠ্য, ভাষা প্রাঞ্জল এবং মার্জিত। কিছু কঠিন বিষয় তুলে ধরার ক্ষেত্রে তিনি দারুন রস দিয়েছেন। বইটির কয়েকটি লেখায় করপোরেট মিডিয়ার সাংবাদিকতার চিত্র চমৎকারভাবে লেখক তুলে ধরেছেন।

‘জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে ক্যুর সঙ্গে জড়িত ৯৬ জনকে ফাঁসিতে ঝুলানো জল্লাদ এরশাদকে সাংবাদিক আজাদ তালুকদারের খুঁজে পাওয়া ও এ নিয়ে আলোচিত রিপোর্ট করার নেপথ্য গল্প উঠে এসেছে ‘রিপোর্টারের ডায়েরি’তে।’

পরিশেষে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমার মনে হয় সাহসী ও অনুসন্ধানী সংবাদিকতায় যাদের ইচ্ছে বা আগ্রহ আছে তাদের কাছে বইটি বেশ ভালো লাগবে । ’

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞাপন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com