রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ময়মনসিংহের ভালুকা পৌর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সাংবাদিক- জামাল ৬৫ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে ১০ জেলেকে ছেড়ে দিলেন এএসআই! ময়মনসিংহের ভালুকায় গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যকে গণধোলাই পুলিশে শোপর্দ ৩৬ তম বিসিএস পুলিশ ব্যাচের সভাপতি ইমরুল, সা.সম্পাদক রাকিব সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে রংপুরে মানববন্ধন রাজনীতি আমার পেশা নয় আমার নেশা আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ ময়মনসিংহের ভালুকায় বিশ্ব হাতধোয়া দিবস উপলক্ষে র‌্যালী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সূর্যসেন হলে কোনো ‘টর্চার সেল’ নেইঃ হল সংসদ জাপান ভয়াবহ তাইফুন এর সম্মুখীন হাটহাজারী উপজেলা চেয়ারম্যান গোল্ডকাপ ফুটবলের প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত 
গ্রেপ্তার হলে ইসহাককে জনসম্মুখে আনুন : ফখরুল

গ্রেপ্তার হলে ইসহাককে জনসম্মুখে আনুন : ফখরুল

‘গ্রেপ্তার’ হওয়া ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকারকে জনসম্মুখে হাজির করার দাবি জানিয়েছে বিএনপি। আজ সোমবার মহানগর নাট্যমঞ্চের কাজী বশির মিলনায়তনের সামনে অনশন পালনকালে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দেশের সংবিধান অনুযায়ী, আইন অনুযায়ী কাউকে গ্রেপ্তার করতে হলে জানাতে হবে। এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে সোপর্দ করতে হবে। কিন্তু গতকাল রাতে ইসহাক সরকারকে গ্রেপ্তার করার পর এখনো তাঁকে কোর্টে নেওয়া হয় নাই। এবং তাঁর সম্পর্কে পরিবারকে কোনো কিছু জানানো হয় নাই।’

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘আগেও এ রকম অনেক ঘটনা ঘটেছে। আমাদের নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করার পর তাদের আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। অবিলম্বে তিনি কোথায় আছে, কেমন আছে, তার পরিবারকে এবং আমাদেরকে জানানোর জন্য বিশেষভাবে আহ্বান জানাচ্ছি।’

এ সময় সেখানে ইসহাক সরকারের স্ত্রী ও বোন উপস্থিত ছিলেন।

ইসহাকের স্ত্রী বলেন, ‘গতকাল সাদা পোশাকধারী কিছু লোক এসে আমার স্বামীকে গ্রেপ্তার করে। এরপর আমরা তাঁর কোনো তথ্য জানতে পারিনি। আমি আমার স্বামীকে এক নজর দেখতে চাই। অবিলম্বে তাঁকে আমাদের সামনে হাজির করা হোক। সরকারের প্রতি আমার দাবি, আমার স্বামী যদি কোনো অন্যায় করে থাকেন, তাঁকে আইনের আওতায় শাস্তি দেওয়া হোক। তবু আমার স্বামীকে একবার আমার সামনে হাজির করা হোক।’

ইসহাক সরকারের বোন বলেন, ‘আমার ভাইকে ধরে নেওয়ার পর, আমরা সারারাত রাস্তায় কাটিয়েছি। ভাইকে দেখতে চাই। আমরা পরিবারের সকল সদস্য তাঁকে দেখার জন্য অস্থির হয়ে আছে। অবিলম্বে আমার ভাই কোথায় আছে আমাদেরকে জানানো হোক।’

ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকারকে গতকাল রাত সোয়া ১১টার দিকে বনানী থেকে সাদা পোশাকধারী কিছু লোক তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেছে তাঁর পরিবার। এরপর থেকে তাঁর আর কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে না।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com