মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শাক্তা ইউনিয়নে হাজী হাবিবুর রহমান হাবিবের ঈদ উপহার পেয়ে আনন্দিত ৯টি ওয়ার্ডের কর্মহীন মানুষ ২ জুন অধিবেশন শুরু, বাজেট উপস্থাপন ৩ জুন এবারও ঈদুল ফিতরে বায়তুল মোকাররমে ৫ জামাত রূপগঞ্জে পরিবহন শ্রমিকরা পেল বসুন্ধরা ও রংধনু গ্রুপের ঈদ উপহার সামগ্রী শ্রমিকদের দাবির মুখে ছুটি বাড়াচ্ছেন গার্মেন্টস মালিকরা গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় শিশুসহ নিহত ২০ করোনায় বিপর্যস্ত ভারত : মোদিকে সহমর্মিতা জানিয়ে শেখ হাসিনার চিঠি স্বাভাবিক করে দেয়া হলো বাংলাবাজার-শিমুলিয়া ফেরি চলাচল রূপগঞ্জের কর্মহীন কোন মানুষ অনাহারে থাকবে না – রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম ইসহাক ভূইয়াঁ ফাউন্ডেশন ও জালালপুর ইকো রিসোর্ট এর রামাদান উপলক্ষে মাসব্যাপী আয়োজন
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চারজনকে হত্যা: মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে ২ আসামির যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চারজনকে হত্যা: মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে ২ আসামির যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক গর্ভবতী নারীসহ চার জনকে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আপিল বিভাগ। যাবজ্জীবন পাওয়া ওই দুই আসামি হলেন সোহেল ও রাজীব। এর আগে বিচারিক আদালত তাদের মৃত্যুদণ্ড দিলে তা হাইকোর্টেও বহাল থাকে।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ যাবজ্জীবনের এ রায় দেন। মামলার অপর আসামি পিয়াসকে (আত্মীয়) খালাস দিয়েছেন আদালত। এছাড়া মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বাকি পাঁচ আসামি বিচার শেষ হওয়ার আগেই মারা গেছেন।

৯ বছর পর বুধবার আপিল বিভাগ ওই হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করলেন। রায়ে কনডেম সেলে থাকা সোহেল ও রাজীবকে দ্রুত সাধারণ সেলে দেওয়ারও নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

পারিবারিক কোন্দলে ২০০৫ সালে আক্তার, তার গর্ভবতী স্ত্রী ও আড়াই বছরের শিশু অর্না আক্তারকে নিহতের ভাই সিরাজুল ও তার সন্তানরা হত্যা করেন। ২০০৬ সালের ৯ সেপ্টেম্বর সিরাজুলসহ ৮ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন বিচারিক আদালত। এরপর ২০১২ সালে হাইকোর্ট ৮ জনেরই মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com