বৃহস্পতিবার, ২৪ Jun ২০২১, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন

রিয়ালকে বিদায় করে ৯ বছর পর টুখেলের হাত ধরে ফাইনালে চেলসি

রিয়ালকে বিদায় করে ৯ বছর পর টুখেলের হাত ধরে ফাইনালে চেলসি

রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে ৯ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পা রাখলো চেলসি। টমাস টুখেলের কোচিংয়ে বদলে যাওয়া চেলসির সামনে এ দিন পাত্তাই পায়নি জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। পুরো ম্যাচজুড়ে দাপুটে খেলে জয় তুলে নেয় দ্য ব্লুজ খ্যাতরা। বুধবার রাতে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে দ্বিতীয় লেগে ২-০ গোলে জিতেছে চেলসি। দুই লেগ মিলে ৩-১ গোলের ব্যবধানে জয় দিয়ে ফাইনালে উঠল স্বাগতিকরা। টিমো ভেরনারের গোলে এগিয়ে থাকার চেলসির হয়ে ব্যবধান বাড়ান ম্যাসন মাউন্ট।

কোচিং ক্যারিয়ারে বেশ অভিজ্ঞ জিদান। তার নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, লা লিগাসহ বেশ কয়েকটি শিরোপা ঘরে তুলেছে রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে টুখেলও পিছিয়ে নেই। গত মৌসুমে পিএসজিকে ফাইনালে তুলেছিলেন তিনি। চলতি মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে প্যারিস ছাড়লেও বদলায়নি তার গতি। এ নিয়ে জিদানের শিষ্যদের বিপক্ষে যতবার দেখা হয়েছে কখনো হারতে হয়নি টুখেলের শিষ্যদের।

পুরো ম্যাচে চেলসি একক আধিপত্য ধরে রাখে। লড়াই করার মতো শক্তিই প্রকাশ পায়নি রিয়াদ মাদ্রিদের মাঝে।পুরো ম্যাচে বল দখলে আধিপত্যের পাশাপাশি প্রতিপক্ষের রক্ষণের বেশ পরীক্ষা নিয়েছে স্বাগতিকরা। পুরো ম্যাচে গোলের উদ্দেশে মোট ১৫টি শট নেয় তারা, যার পাঁচটি ছিল লক্ষ্যে।

শুরুটা খুব একটা আহামরি হয়নি। তবে বলের নিয়ন্ত্রণ ঠিকই নিজেদের পায়ে ধরে রেখেছিল চেলসি। প্রতিপক্ষকে কোনোভাবেই রক্ষণ ভেদ করতে দিচ্ছিল না স্বাগতিক ডিফেন্ডাররা। ২৬তম মিনিটে করিম বেনজেমার জোরালো শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে চেলসির গোলরক্ষক ফেরান মঁদি।

পাল্টা আক্রমণে দু’মিনিট পরই এগিয়ে যায় চেলসি। ভেরনারের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ডি-বক্সে কাই হাভার্টজকে খুঁজে নেন এনগোলো কঁতে। এগিয়ে আসা কোর্তোয়ার ওপর দিয়ে নেওয়া হাভার্টজের চিপ ক্রসবারে বাধা পায়, তবে সঠিক সময়ে গোলমুখে ছুটে গিয়ে হেডে ফাঁকা জালে বল পাঠান ভেরনার।

প্রথমার্ধে দু’দলই বেশ কয়েকবার সুযোগ পায়। কিন্তু তাতে ব্যবধান বাড়ানো কিংবা কমাতে পারেনি কেউই। দ্বিতীয়ার্ধে এসে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠে চেলসি। সেই তুলনায় ম্যাচ থেকে ছিঁটকে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। একের পর এক আক্রমণে রিয়ালের রক্ষণে ভীত গড়তে থাকেন ম্যাসন মাউন্ট ও হার্ভাটেজরা। তবে বেশ কয়েকবার সুযোগ মিসের কারণে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি চেলসি।

৮৫তম মিনিটে চেলসির জয়টা নিশ্চিত করে ফেলেন ইংলিশ মিডফিল্ডার মাউন্ট। নাচো ফের্নান্দেসের কাছ থেকে বল কেড়ে কঁতে ডি-বক্সে খুঁজে নেন ক্রিস্টিয়ান পুলিসিককে। যুক্তরাষ্ট্রের এই তরুণ উইঙ্গারের কাটব্যাক গোলমুখে পেয়েই লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। শেষের দিকে আর কোনো গোল না হওয়ায় পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রেকর্ড ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ।

আগামী ২৯ মে তুরস্কের ইস্তানবুলে শিরোপা লড়াইয়ে ম্যানচেস্টার সিটির মুখোমুখী হবে চেলসি।

 

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com