বৃহস্পতিবার, ২৪ Jun ২০২১, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন

রূপগঞ্জের ভুয়া আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়ামের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই॥ চেয়ারম্যানসহ পরিচালকদের পতিহত করার ঘোষণা ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর

রূপগঞ্জের ভুয়া আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়ামের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই॥ চেয়ারম্যানসহ পরিচালকদের পতিহত করার ঘোষণা ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর

নিজস্ব প্রতিবেদক,রুপগঞ্জ থেকে :
সময়ের ব্যবধানে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের কৃষি জমি এখন সোনার চেয়েও দামী। রাজধানী ঢাকার অতি কাছে হওয়ায় এ এলাকার কৃষি জমির দাম বিগত ১০ বছরে অস্বাভাবিক বেড়েছে এবং বেড়েই চলেছে। যার ফলে নামী দামী বৈধ আবাসন কোম্পানী গুলো এ এলাকায় ন্যায্য মূল্যে জমি কেনার জন্য বেশ আগ্রহ দেখাচ্ছে।

তবে একটি অবৈধ কোম্পানীর বিরুদ্ধে কৃষকের জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই অবৈধ আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম অন্যতম।

জানা গেছে,ভূইফোড় আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেড প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে জোড়পূর্বক কৃষকের জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে। যার ফলে ভূক্তভোগী এলাকাবাসী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেড প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে।

খোঁজ নিয়ে আরও জানা গেছে, ভুয়া আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেড কায়েতপাড়া ইউনিয়নের মাঝিনা মৌজায় মাত্র ৩/৪ বিঘা জমি কিনে নিরিহ কৃষকদের প্রায় ৫’শ বিঘা জমি জোর করে দখলে নিয়ে বালু ভরাট কার্যক্রম শুরু করে। এতে এলাকাবাসী বাধা দিলে তাদেরকে মামলা হামলা দিয়ে হয়রানী করছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিশেষ করে প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান মিঠু, পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান ও গফুর আজাদ এই জবর দখলের সাথে জড়িত। তারা প্রভাব কিস্তার করে কৃষকের জমি দখল করছে।

এ কারনে স্থানীয়রা বিক্ষুব্ধ হয়ে গত সোমবার বিকেলে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচিতে অংশ নেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল আলম, এডভোকেট আব্দুল আউয়াল, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান সজীব, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম চৌধুরী অপু, আলতাফ হোসেন, আলী আজগর, মোজাম্মেল হক মিলনসহ কায়েতপাড়া ইউনিয়নের হাজার হাজার নারী পুরুষ। এ সময় মানব বন্ধনে অংশ গ্রহণকারীরা বলেন,যদি কায়েতপাড়া ইউনিয়নের কৃষকদের নায্যমুল্য না দিয়ে জমি জবর-দখল করে এই ভুয়া প্রতিষ্ঠান কায়েতপাড়ার মাটিতে পা রাখে তাহলে জনগন ঐ জমি দখলকারীদের সম্মিলিতভাবে প্রতিহত করবে।

এসময় বক্তব্যে কায়েতপাড়া ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মহিউদ্দিন মেম্বার বলেন, অবৈধ আবাসন ওয়েলকেয়ার কোম্পানী সাধারণ মানুষের জমি না কিনেই ভিটেবাড়ি দখল করে সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়েছে,আমরা এর বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাব।

উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হক মিলন বলেন, পুলিশ হাউজিং ও সেনাবাহিনীর আবাসন প্রকল্প জনগনের ন্যায্য পাওনা দিয়ে জমি কিনছে। তাদের প্রতি সাধারণ মানুষের কোন ক্ষোভ নেই ওয়েলকেয়ার একটি বাটপার,প্রতারক ও অবৈধ কোম্পানী তারা সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করছে। কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড আব্দুল আউয়াল বলেন, ওয়েলকেয়ার কোম্পানী সাধারণ মানুষের ২বিঘা জমিও কিনে নাই। কিন্তু ভাড়ায় সাইনবোর্ড লাগিয়ে কয়েকহাজার প্লট বিভিন্ন লোকের কাছে বিক্রি করছে। এতে সাধারণ মানুষ প্রতারিত হচ্ছে।
এলাকাবাসী রত্না আক্তার জানান, ওয়েল কেয়ারের প্রতারণার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে তাদের নিয়োজিত সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে সাধারণ মানুষের বাড়িতে হামলা, মামলা দিয়ে হয়রানী করেন। অনতি বিলম্বে হয়রানী বন্ধ করতে হবে।
স্থানীয় বাসিন্দা কুলসুম আক্তার বলেন, ওয়েল কেয়ার আবাসন প্রকল্পকে রূপগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার চাই এবং রুপগঞ্জের মাটিতে ভুয়া আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেড প্রতিষ্ঠানের স্থায় হবে না। কুলসুম আরো বলেন,ওয়েলকেয়ার কোম্পানীর অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ট। আমরা এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আওয়ামীলীগ নেতা আলাউদ্দিন মিয়া বলেন, ওয়েলকেয়ার আবাসন প্রকল্পের কাছে সাধারণ মানুষ জিম্মী হয়ে পড়েছে। তাদের জমি না কিনেই তারা মানুষের জমিতে সাইনবোর্ড লাগিয়ে জোরপূর্বক দখল করেছে রেখেছে। এছাড়া এ আবাসন কোম্পানীটি মানুষের জমি না কিনে কিছু ভাড়া নিয়ে সহজ-সরল কৃষকের জমিতে সাইনবোর্ড লাগিয়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষকে নিয়ে এসে প্রতারণার ফাদে ফেলে কোটি কোটি হাতিয়ে নিচ্ছে।

কায়েতপাড়া ইউনিয়নের কৃষকদের সাথে কথা বলে আরও জানা গেছে, জমির সঠিক দাম এবং কৃষকদের হয়রানী বন্ধ না হলে যে কোন মূল্যে তারা ভুয়া আবাসন কোম্পানী ওয়েলকেয়ার কনসোর্টিয়াম লিমিটেড প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভ অব্যাহত রাখবে।

সময়ের ধারা নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com