সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

রাসেল-শামীমা রিমান্ডে প্রতারণার তথ্য দিয়েছেন

রাসেল-শামীমা রিমান্ডে প্রতারণার তথ্য দিয়েছেন

আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল এবং চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের নামে এবার যশোরে মামলা করেছেন এক গ্রাহক। জাহাঙ্গীর আলম চঞ্চল নামের ওই গ্রাহক অনলাইনে ইভ্যালি থেকে একটি মোটরসাইকেল কেনার জন্য ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘদিন পরও মোটরসাইকেল না দেওয়ায় গত শুক্রবার রাতে কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের।

থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, অভিযোগ তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জাহাঙ্গীর অভিযোগ করেন, ১ লাখ ৩০ হাজার ১৪০ টাকায় ভারতীয় বাজাজ কোম্পানির একটি পালসার মোটরসাইকেল অর্ডার করেন। এর পর কয়েকটি কিস্তিতে পুরো অর্থ পরিশোধও করেন। টাকা পরিশোধের ৪৫ কার্যদিবসের মধ্যে পণ্যটি ডেলিভারি দেওয়ার কথা ছিল। সাড়ে তিন মাসেও তা পাননি তিনি।

এদিকে ইভ্যালির এমডি ও সিইও রাসেল এবং চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে গুলশান থানাপুলিশ। তিন দিনের রিমান্ডের প্রথম দিন রাসেল ও শামীমা গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণার বিষয়ে তথ্য দিয়েছেন।

এদিকে পণ্য অর্ডার করেও না পাওয়ায় উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে গ্রাহকদের মধ্যে। এর মধ্যেই সেলারদের রেগুলার বিল দিতে না পারায় ‘ইভ্যালি টি-টেন’ অফারের অর্ডার নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। গত শুক্রবার রাত ১টা ১৮ মিনিটে ইভ্যালির ফেসবুক পেজে জরুরি নোটিশে এ তথ্য জানানো হয়। গতকাল সকালে আরেক স্ট্যাটাসে ‘অফিস কার্যক্রম সংক্রান্ত এক নোটিশে’ জানানো হয়, প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা হোম অফিস করবেন এবং স্বাভাবিক সময়ের মতোই সার্ভিস চালু রাখা হবে। কিন্তু তাতেও আস্থা রাখতে পারছেন না গ্রাহকরা। এ কারণে গতকালও শাহবাগে সড়ক আটকে বিক্ষোভ করেন বিক্ষুব্ধরা। তবে পুলিশ তাদের বেশিক্ষণ রাস্তায় দাঁড়াতে দেয়নি।

 

সময়ের ধারা সংবাদটি শেয়ার করুন এবং আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing by Raytahost.com