মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন

মুন্সীগঞ্জে অস্ত্র ও মাদকসহ যুবলীগ নেতার ড্রাইভারসহ গ্রেফতার-২

মুন্সীগঞ্জে অস্ত্র ও মাদকসহ যুবলীগ নেতার ড্রাইভারসহ গ্রেফতার-২

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈখর এলাকা থেকে দেশীয় অস্ত্র (পাইপগান) ও ফেনসিডিলসহ যুবলীগ নেতার ব্যক্তিগত ড্রাইভারসহ অবৈধ অস্ত্রধারী ২ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৮ মার্চ দিবাগত রাত পৌনে ১ টার দিকে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈখর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেভতার করে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈখর পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত অফিজ উদ্দিন সরকারের ছেলে মোঃ আব্দুল জব্বার ওরফে বাবু (২৫) ও সিরাজদিখান উপজেলার পশ্চিম শিয়ালদী গ্রামের আমির আলী শিকদারের ছেলে মোঃ রাসেল শিকদার (৩৪)।

এসময় ধৃত ওই দুই মাদক ব্যবসায়ীর হেফাজত থেকে ১ লাখ ৮ হাজার টাকা মূল্যের ৩৬ বোতল ফেনসিডিল, ৩টি দেশীয় অস্ত্র (পাইপগান) ও ২০টি রাবার কার্তুজ উদ্ধার পূর্বক জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করে র‌্যাব-১০। বেশ কয়েকটি গোপন সূত্র থেকে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ রাসেল শিকদার সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক মনোয়ার হোসেন মনুর ব্যক্তিগত ড্রাইভার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে চাকুরী করে আসছিলো। র‌্যাব-১০ কর্তৃক অস্ত্র ও মাদকসহ রাসেল শিকদার গ্রেফতার হওয়ার পর বিষয়টি সামনে আসে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে গ্রেফতারকৃত দুই মাদক ব্যবসায়ীর ছবি পোষ্ট করে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন দলীয় নেতাকর্মীসহ স্থানীয় এলাকাবাসী। তবে কি মাদক ও অস্ত্র ব্যবসার সাথে যুবলীগ নেতা মনোয়ার হোসেন মনু জড়িত? এমটাই প্রশ্ন তাদের।

এদিকে মাদক ও অস্ত্র ব্যবসার সাথে যুবলীগ নেতার সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে এমন সন্দেহে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য পুলিশ ও র‌্যাবের উর্ধতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন তারা।নাম প্রকাম না করার শর্তে সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের একাধিক নেতা জানান, রাসেল শিকদার যুবলীগ নেতা মনুর ট্রাইভার। এটা এলাকার সবারই জানা। আমাদের দাবী যু্বলীগ নেতা মনুর ড্রাইভারের মাদক ও অস্ত্র ব্যবসার সাথে তার সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হোক। এ সংক্রান্তে সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক মনোয়ার হোসেন মনুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ব্যস্ততা দেখিয়ে ফোন রেখে দেন। পরে তার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করেও তার সাড়া পাওয়া যায় নি। এ ব্যাপারে র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার ও সহকারী পরিচালক ( মিডিয়া) এম.জে.সোহেল বলেন, দুই ব্যাক্তিকে অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

সময়ের ধারা সংবাদটি শেয়ার করুন এবং আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

© All rights reserved © somoyerdhara.com
Desing by Raytahost.com